সব
facebook netrokonajournal.com
কিসমিসের যত পুষ্টি মান : স্রষ্টার দেয়া বিশেষ নেয়ামত | নেত্রকোণা জার্নাল

কিসমিসের যত পুষ্টি মান : স্রষ্টার দেয়া বিশেষ নেয়ামত

প্রকাশের সময়:

কিসমিসের যত পুষ্টি মান : স্রষ্টার দেয়া বিশেষ নেয়ামত

ads1

সৌরভী খান মনি, বিশেষ প্রতিবেদকঃ  আংগুর খুবই জনপ্রিয় ও সুস্বাদু একটা ফল। তবে ফ্রেশ আংগুরের চেয়ে শুকনো আংগুরের জনপ্রিয়তা, উপকারীতা ও ব্যাবহার বেশি প্রচলিত। ঠিকই ধরেছেন আমি কিসমিসের উপকারীতার কথা বলছি। এটি তৈরি করা হয় সূর্যের তাপ অথবা মাইক্রোওয়েভ ওভেনের সাহায্যে। তাপের ফ্রুক্টোজগুলো জমাট বেঁধে পরিণত হয় কিশমিশে। আর এভাবেই আঙ্গুর শুকিয়ে তৈরি করা হয় মিষ্টি স্বাদের কিসমিস। যেকোন মিষ্টি খাবারের স্বাদ এবং সৌন্দর্য বাড়ানোর জন্য কিসমিস ব্যবহার করা হয়।

কিসমিস এমন একটা খাবার যা অন্য খাবারের সৌন্দর্য বৃদ্ধি সহ অনেক উপকার করে থাকে। আমরা অনেকেই মনে করি এটা শুধু খাবারের মধ্যেই ব্যবহার করা হয়। যেমন পোলাও, কোরমা, সেমাই বা যেকোনো ডেজার্ট এ ব্যবহার করা হয়।

অনেকে আবার এটাকে শুধু খাওয়াকে ক্ষতিকর মনে করেন। অথচ পুষ্টিবিদদের মতে, প্রতি ১০০ গ্রাম কিসমিসে রয়েছে এনার্জি ৩০৪ কিলোক্যালরি, কার্বোহাইড্রেট ৭৪.৬ গ্রাম, ডায়েটরি ফাইবার ১.১ গ্রাম, ফ্যাট ০.৩ গ্রাম, প্রোটিন ১.৮ গ্রাম, ক্যালসিয়াম ৮৭ মিলিগ্রাম, আয়রন ৭.৭ মিলিগ্রাম, পটাসিয়াম ৭৮ মিলিগ্রাম ও সোডিয়াম ২০.৪ মিলিগ্রাম।এটি রক্তে শর্করার মাত্রায় ঝামেলা তৈরি করে না। এটি খেলে শরীরের রক্ত দ্রুত বৃদ্ধি পায়, পিত্ত ও বায়ুর সমস্যা দূর হয়। এটি হৃদপিণ্ডের জন্যও অনেক উপকারি।

তবে শুকনো কিসমিস খাওয়ার চেয়ে ভিজিয়ে খেলে বেশি উপকার মিলে। কিসমিস খাওয়ার সবচেয়ে ভালো উপায় হলো সারারাত পানিতে ভিজিয়ে রাখা। পরের দিন ভোরে সেটা খেতে হবে খালি পেটে। ভেজানো কিসমিসে থাকে আয়রন, পটাসিয়াম, ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম এবং ফাইবার। তাছাড়া এতে থাকা প্রাকৃতিক চিনি শরীরের কোনো ক্ষতিও করে না। এমনকি উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা থাকলেও এটি তা বশে রাখে।

কিসমিস সারারাত পানিতে ভিজিয়ে রেখে সকালে খালি পেটে এই ভেজানো পানি পান ও ভেজানো কিসমিস খাওয়ার উপকারীতা জেনে নেই।

১. ভেজানো কিসমিস খেলে শরীরে আয়রনের ঘাটতি দূর হয়।

২. রক্তে লাল কণিকার পরিমাণ বাড়ে।

৩. কিসমিস ভেজানো পানি রক্ত পরিষ্কার করতে সাহায্য করে।

৪. এমনকি প্রতিদিন কিসমিস ভেজানো পানি পান করলে কোষ্ঠকাঠিন্য, অ্যাসিডিটি থেকে মুক্তি মেলে।

৫. কিসমিস হার্ট ভালো রাখে।

৬. নিয়ন্ত্রণে রাখে কোলেস্টেরল।

৭. কিসমিসে প্রচুর ভিটামিন এবং খনিজ উপাদন রয়েছে।

৮. রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে ভেজা কিসমিসের বিকল্প নেই। এতে রয়েছে প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, যা যে কোনো রোগের সঙ্গে লড়াই করে।

৯. কিসমিসে আরও আছে পটাসিয়াম, ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম এবং ফাইবার।

১০. উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে কিসমিস বেশ উপকারী একটি দাওয়াই।

১১. রক্ত স্বল্পতা কমাতে কিসমিসই যথেষ্ট। নিয়মিত খেলে এর মধ্যে থাকা আয়রন হিমোগ্লোবিনের মাত্রা বাড়ায়।

১২. সুস্থ থাকতে ভালো হজমশক্তি প্রয়োজন। এক্ষেত্রে কিসমিস হজমশক্তি বাড়াতে সাহায্য করে।

১৩. শরীরে থাকা ক্ষতিকর পদার্থকে দূর করে কিসমিস। এতে শরীর বিষমুক্ত হয়। সকালে খালি পেটে ভেজানো কিসমিস খেলে শরীর বিষমুক্ত হবে। ভেজানো কিসমিসের পাশাপাশি সেই পানিও পান করতে পারেন।

১৪. কিসমিস খাওয়া উপকারী হলেও এটি বেশি পরিমাণে খেলে স্বাস্থ্যের অবনতি ঘটতে পারে। কিসমিসে ফ্রুকটোজের পাশাপাশি গ্লুকোজও রয়েছে। যা ওজন বাড়িয়ে দেয়। অতিরিক্ত খেলে শ্বাসকষ্ট, বমি, ডায়রিয়ার মতো সমস্যা হতে পারে।

এছাড়াও গর্ভবতী মহিলার জন্য কিসমিস খুবই উপকারী এটা হয়তো আমরা অনেকেই জানি না।একজন গর্ভবতী মহিলার স্বাস্থ্যের জন্য ভীষণ উপকারি হয়ে উঠতে পারে।আসুন গর্ভবতী নারীর জন্য কিসমিসের পুষ্টি মানের ব্যাপারে জেনে নেই।

কিসমিস ফাইবার সমৃদ্ধ উৎস।এগুলি হজম করা সহজ এবং আপনার পাচন তন্ত্রকে সঠিক পথে রাখতে সহায়তা করতে পারে।ফাইবার আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ন ঠিকই তবে সেটি একজন গর্ভবতী মহিলার জন্য আরও বেশি জরুরি।গর্ভাবস্থায় একজন মহিলার দেহকে খাদ্য ভাঙ্গনের জন্য লড়াই করতে হয়।হরমোনীয় ভারসাম্যহীনতাগুলি বহুবিধ হজমজনিত সমস্যার কারণ হয়ে উঠতে পারে, তবে কিসমিস সেগুলি নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে। এছাড়া কিসমিস আয়রন ও ক্যালসিয়ামের ঘাটতি কমায়। যা গর্ভাবস্থায় খুবই জরুরি।

এছাড়া কিসমিস আপনার দেহে হিমোগ্লোবিন উৎপাদনের পরিমাণ বাড়াতে সহায়তা করতে পারে, যা দেহের মধ্যে লোহিত রক্ত কণিকা উৎপাদনে সহায়তা করে।গর্ভবতী হওয়ার পর আপনার দেহ প্রচুর ট্রমার মধ্য দিয়ে অতিবাহিত হয় এবং দেহে অসংখ্য পরিবর্তন হয়ে থাকে, যা আপনার দেহের মধ্যে লোহিত রক্ত কণিকা উৎপাদনে প্রভাব ফেলতে পারে।কিন্তু কিসমিস খেলে তা এই সকল সমস্যাগুলিকে সহজেই মোকাবিলা করতে পারে।

আসুন আমরা শুধু ঔষধ নির্ভর না হয়ে প্রাকৃতিক উপাদান গ্রহণের মাধ্যমে সুস্থ থাকার চেস্টা করি।

ads1

আপনার মতামত লিখুন :

 ফেসবুক পেজ

 আজকের নামাজের ওয়াক্ত শুরু

    নেত্রকোণা, ময়মনসিংহ, ঢাকা, বাংলাদেশ
    মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২
    ১ Rabi' I, ১৪৪৪
    ওয়াক্তসময়
    সুবহে সাদিকভোর ৪:৩৩ পূর্বাহ্ণ
    সূর্যোদয়ভোর ৫:৪৯ পূর্বাহ্ণ
    যোহরদুপুর ১১:৪৯ পূর্বাহ্ণ
    আছরবিকাল ৩:১৪ অপরাহ্ণ
    মাগরিবসন্ধ্যা ৫:৫০ অপরাহ্ণ
    এশা রাত ৭:০৫ অপরাহ্ণ
মোহনগঞ্জ সমিতি ঢাকার উদ্যোগে হাসপাতালে অপারেশন থিয়েটারের যন্ত্রপাতি প্রদান

মোহনগঞ্জ সমিতি ঢাকার উদ্যোগে হাসপাতালে অপারেশন থিয়েটারের যন্ত্রপাতি প্রদান

মোহনগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্ল্যান্ট উদ্বোধন

মোহনগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্ল্যান্ট উদ্বোধন

খালিয়াজুরী স্বাস্থ্য সেবায় প্রথম বারের মতো যুক্ত হলো রক্ত প্রতিস্থাপন কার্যক্রম

খালিয়াজুরী স্বাস্থ্য সেবায় প্রথম বারের মতো যুক্ত হলো রক্ত প্রতিস্থাপন কার্যক্রম

নেত্রকোণায় তিন লাখ শিশুকে এ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে

নেত্রকোণায় তিন লাখ শিশুকে এ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে

কেন্দুয়ায় ৭ ডায়গনস্টিক সেন্টারকে অর্থদণ্ড, ৪টিতে সিলগালা

কেন্দুয়ায় ৭ ডায়গনস্টিক সেন্টারকে অর্থদণ্ড, ৪টিতে সিলগালা

কেন্দুয়ায় আন্তর্জাতিক নার্সেস দিবস পালিত

কেন্দুয়ায় আন্তর্জাতিক নার্সেস দিবস পালিত

সর্বশেষ সংবাদ সর্বাধিক পঠিত
 
উপদেষ্টা সম্পাদক : দিলওয়ার খান
সম্পাদক ও প্রকাশক : মুহা. জহিরুল ইসলাম অসীম  
অস্থায়ী কার্যালয় : এআরএফবি ভবন, ময়মনসিংহ রোড, সাকুয়া বাজার, নেত্রকোণা সদর, ২৪০০ ।
ফোনঃ ০১৭৩৫ ০৭ ৪৬ ০৪, বিজ্ঞাপনঃ ০১৬৪৫ ৮৮ ৪০ ৫০
ই-মেইল : netrokonajournal@gmail.com
© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত।