সব
facebook netrokonajournal.com
কেন্দুয়ায় সাঁকোতে হামাগুড়ি খেয়ে স্কুলে যায় ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা | নেত্রকোণা জার্নাল

কেন্দুয়ায় সাঁকোতে হামাগুড়ি খেয়ে স্কুলে যায় ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা

প্রকাশের সময়:

কেন্দুয়ায় সাঁকোতে হামাগুড়ি খেয়ে স্কুলে যায় ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা

ads1

মজিবুর রহমান:
নেত্রকোণার কেন্দুয়া উপজেলার রোয়াইলবাড়ি আমতলা ইউনিয়নের রাজনগর গ্রামের বুক ছিঁড়ে বয়ে গেছে সুতী নদী। নদীর উত্তর পাড়ে ১৯৩৮ সালে রাজনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠা করেন স্থানীয় বিদ্যুৎসাহী ব্যক্তিবর্গ।

বর্তমানে বিদ্যালয়টি ইউনিয়নের মডেল ক্লাস্টার হিসেবে উন্নীতকরণ করা হয়েছে। বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠার পর থেকেই দক্ষিণ পাড়ে রাজনগর ও রোয়াইলবাড়ি গ্রামের শিক্ষার্থী সংখ্যা বেশি। বর্ষায় জীবনের ঝুঁকি কলাগাছের ভেলা, ডিঙ্গি নৌকায় পারি দিয়ে স্কুলে যাওয়া-আসা করে শিক্ষার্থীরা। শুকনো মৌসুমে পানি কমলে দেওয়া হয় চিকন এক বাঁশের সাঁকো। প্রতিদিন খুদে শিক্ষার্থীরা এই বাঁশে সাঁকোতে হামাগুড়ি খেয়ে পার হতে হয়। প্রায় সময় সাঁকো পার হতে গিয়ে নদী পড়ে যায় । এসময় তাঁদের বই-খাতা খোয়া যায়, ভিজে নষ্ট হয় ও শিক্ষার্থীরা আহত হন।

তাদের এ সমস্যা নিত্যদিন। যুগ যুগ ধরে এ এলাকার শিক্ষার্থীদের কষ্ট-দুঃখের কথা স্থানীয় জনপ্রতিনিধি,প্রশাসনের কাছে জানিয়ে আসলেও কর্ণপাত করছেন না কেউ। নদীর ওপর একটি ব্রিজ না থাকায় চরম দুর্ভোগে শিক্ষার্থী ও এলাকার মানুষ। একটি ব্রীজ হলে বাদলে যাবে এলাকার দৃশ্যপট।

পঞ্চম শ্রেনি শিক্ষার্থী সিয়াম জানায়, নদীর দক্ষিণ পাড়েই তার বাড়ি। স্কুল থেকে তাঁর বাড়ির দুরত্ব কয়েকশ গজ । তাদের বাড়ির কাছে আর কোন বিদ্যালয় নেই। তাই বাধ্য হয়ে তারা প্রতিদিন জীবনের ঝঁকি নিয়ে এই এক বাঁশে সাঁকো পাড়ি দিয়ে স্কুলে যাই। বর্ষা মৌসুমে নদীতে যখন প্রবল স্রোত ও নদী ভরা পানি থাকে তখন দুই-তিন মাস প্রায় দেড় কিলোমিটার পথে ঘুরে স্কুলে আসতে হয় । নদীতে একটা ব্রীজ হলে আমারা নিশ্চিন্তে স্কুলে আসা-যাওয়া করতে পারতাম।

রাজনগর গ্রামের শহীদুল্লাহ মাস্টার জানান,আমাদের বাচ্চাদের স্কুলে পাঠিয়ে সবসময়ই আতঙ্কে ও দুশ্চিন্তায় থাকি কারণ কোন খবর আসে। প্রায় ছেলে-মেয়েরা বই-খাতা ভিজায়ে কান্না করে বাড়িতে ফেরে। একটি ব্রীজের জন্য যুগ যুগ ধরে বিভিন্ন জায়গায় ধর্না দিয়েও কাজ হচ্ছে না। এখানে একটি ব্রীজ হলে শিক্ষার্থীরা যেমন নির্বিঘ্নে স্কুলে আসা-যাওয়া করবে তেমনি এলাকার সাধারণ মানুষের চলাচলের পথ সুগম হবে।

রাজনগর সরকারি প্রাথমিক ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক তাজুল ইসলাম জানান, তাঁর বিদ্যালয়ে সিংহভাগ ছাত্র/ছাত্রীই নদী ওই পাড়ের বাসিন্দা। সীমাহীন কষ্ট করে প্রতিদিন তারা স্কুলে আসে। প্রাকৃতিক দুর্যোগ বা বৃষ্টি বাদলের তাদের কষ্টের সীমা থাকে না। স্কুলে আসা-যাওয়া সময় প্রায় দুর্ঘটনার শিকার তারা। বহুদিন ধরে শুনছি নদীতে একটি ব্রীজ হবে। ব্রীজ আর হয় না। স্কুল সংলগ্ন একটি নির্মাণের জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেন তিনি। এব্যাপারে রোয়াইলবাড়ি আমতলা ইউপি চেয়ারম্যান লুৎফর রহমান আকন্দ জানান, আমি পরিষদে দ্বায়িত্ব নেওয়ার পরপরেই শিক্ষার্থীদের যাতায়াতের জন্য একটি মাটির রাস্তা করে দিয়েছি। স্কুলের শিক্ষার্থীদের যাতায়াতের দুর্দশার বিষয়টি এমপি মহোদয় জানেন। তিনি ডিওলেটারও দিয়েছেন। আশা করছি খুব শিঘ্রই ত্রাণ ও দুর্যোগ মন্ত্রণালয়ে হতে স্কুল সংলগ্ন ব্রীজ নির্মাণ করা হবে।

কেন্দুয়া উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) তাসলিমা বেগম লিপি বলেন,স্কুলের শিক্ষার্থীদের নদী পারাপারের বিষয়টি দেখে খুব দুঃখ লাগে। কিন্তু আমাদের করার কিছুই নাই, বিষয়টি উর্ধতন কতৃপক্ষকে জানাবো।

ads1

আপনার মতামত লিখুন :

 ফেসবুক পেজ

 আজকের নামাজের ওয়াক্ত শুরু

    নেত্রকোণা, ময়মনসিংহ, ঢাকা, বাংলাদেশ
    বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২২
    ২ Rabi' I, ১৪৪৪
    ওয়াক্তসময়
    সুবহে সাদিকভোর ৪:৩৪ পূর্বাহ্ণ
    সূর্যোদয়ভোর ৫:৪৯ পূর্বাহ্ণ
    যোহরদুপুর ১১:৪৯ পূর্বাহ্ণ
    আছরবিকাল ৩:১৪ অপরাহ্ণ
    মাগরিবসন্ধ্যা ৫:৪৯ অপরাহ্ণ
    এশা রাত ৭:০৪ অপরাহ্ণ
আটপাড়ায় সিসি ক্যামেরা বিতরণ

আটপাড়ায় সিসি ক্যামেরা বিতরণ

নেত্রকোণায় ডিবির অভিযানে ভারতীয় ৮০ বোতল মদসহ গ্রেফতার তিন

নেত্রকোণায় ডিবির অভিযানে ভারতীয় ৮০ বোতল মদসহ গ্রেফতার তিন

দলিত জনগোষ্ঠীর জীবন মান উন্নয়নে জন সংলাপ অনুষ্ঠিত

দলিত জনগোষ্ঠীর জীবন মান উন্নয়নে জন সংলাপ অনুষ্ঠিত

বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব গোল্ডকাপ টুর্নামেন্টে ফাইনালে মোহনগঞ্জ

বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব গোল্ডকাপ টুর্নামেন্টে ফাইনালে মোহনগঞ্জ

কেন্দুয়ায় গন্ডা ফাজিল মাদ্রাসার ১৫ জন শিক্ষক-কর্মচারীর বিদায় সংবর্ধনা

কেন্দুয়ায় গন্ডা ফাজিল মাদ্রাসার ১৫ জন শিক্ষক-কর্মচারীর বিদায় সংবর্ধনা

কলমাকান্দায় মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল

কলমাকান্দায় মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল

সর্বশেষ সংবাদ সর্বাধিক পঠিত
 
উপদেষ্টা সম্পাদক : দিলওয়ার খান
সম্পাদক ও প্রকাশক : মুহা. জহিরুল ইসলাম অসীম  
অস্থায়ী কার্যালয় : এআরএফবি ভবন, ময়মনসিংহ রোড, সাকুয়া বাজার, নেত্রকোণা সদর, ২৪০০ ।
ফোনঃ ০১৭৩৫ ০৭ ৪৬ ০৪, বিজ্ঞাপনঃ ০১৬৪৫ ৮৮ ৪০ ৫০
ই-মেইল : netrokonajournal@gmail.com
© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত।