সব
facebook netrokonajournal.com
নেত্রকোণায় স্বেচ্ছায় রক্তদানের মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে স্বেচ্ছাসেবী তরুণদের অনেকগুলো সংগঠন | নেত্রকোণা জার্নাল

নেত্রকোণায় স্বেচ্ছায় রক্তদানের মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে স্বেচ্ছাসেবী তরুণদের অনেকগুলো সংগঠন

প্রকাশের সময়:

নেত্রকোণায় স্বেচ্ছায় রক্তদানের মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে স্বেচ্ছাসেবী তরুণদের অনেকগুলো সংগঠন ফাইল ছবি

ads1

।।দিলওয়ার খান।।

উন্নত দেশে বেশিরভাগ রক্তদাতাই হলেন স্বেচ্ছায় রক্তদাতা, যারা সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে রক্তদান করেন। দরিদ্র দেশগুলোতে এ ধরনের প্রতিষ্ঠিত স্বেচ্ছায় রক্তদাতার সংখ্যা বেশ কম, বেশিরভাগ রক্তদাতাই কেবল তাদের পরিচিতজনদের প্রয়োজনে রক্তদান করে থাকেন। আর কিছু রক্তদাতা সমাজসেবামূলক কাজ হিসেবে রক্তদান করেন।

আমাদের দেশে স্বেচ্ছায় রক্তদাতার হার মাত্র ৩১ শতাংশ। আমাদের দেশের রক্তদাতার প্রধান উৎস হল রিপ্লেসমেন্ট ডোনার বা রিলেটিভ ডোনার। যেমন- আপনার প্রয়োজনে আপনার আত্মীয়-স্বজন এসে রক্ত দিল। আর স্বেচ্ছায় রক্তদান হয়তো নির্দিষ্ট সময় পর পর তারা ব্লাড ব্যাংকে রক্ত দিয়ে যায়। তাদের এই দেয়া রক্ত কে পাবে, কোথায় যাবে, কি হবে কিছুই সে জানতে পারবে না। এই স্বেচ্ছায় রক্তদাতার হার মাত্র ৩১ শতাংশ।

এদিকে নেত্রকোণা জেলার ১০ টি উপজেলায় প্রায় ৫০টিরও (সংখ্যাটি কম বেশি হতে পারে) বেশি রক্তদান সংগঠন একযোগে কাজ করে যাচ্ছে। এছাড়াও জাতীয় পর্যায়ের কিছু রক্তদান সংগঠনের বিভিন্ন শাখা নেত্রকোনা সক্রিয়ভাবে কাজ করছে। নেত্রকোনা জেলায় যে সকল স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলো নিরলস প্রচেষ্টার মাধ্যমে বিনা মূল্যে সকল প্রকার রোগীদের রক্ত সরবরাহ করে আসছে সেই সংগঠনগুলোর সংগঠকবৃন্দের অধিকাংশই ছাত্র তরুণ-যুবক, বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার। মানুষকে উৎসাহ প্রদান করার মাধ্যমে, বিনামূল্যে রক্ত পরীক্ষার ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে, সভা, সেমিনার, লিফলেট বিলির মাধ্যমে রক্তদানের উপকারিতা সম্পর্কে সচেতন করে রক্তদাতা, রক্তযোদ্ধা সৃষ্টিতে ব্যাপক ভূমিকা রাখছে। তাদের এই কার্যক্রম নিঃসন্দেহে প্রশংসার দাবিদার। যেসকল সংগঠনগুলো কাজ করে যাচ্ছে তাদের মধ্যে জাতীয় পর্যায়ের রয়েছে রক্তকণিকা। এছাড়াও আঞ্চলিকভাবে নেত্রকোনা ভিত্তিতে যে সংগঠনগুলো একযোগে কাজ করে যাচ্ছে তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো ২০১৮ সালের দিকে জর্ডান প্রবাসী নাজমুল হক ফিরোজ সাঁই কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত পাপড়ী রক্তদান ফাউন্ডেশন, প্রতিষ্ঠানটি সৃষ্টিলগ্ন থেকে অধ্যবধি পর্যন্ত এক হাজারেরও বেশি রক্ত বিনামূল্যে নেত্রকোনা-ময়মনসিংহ, ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় তাদের স্বেচ্ছাসেবী রক্তদাতার মাধ্যমে দিয়েছে। সংগঠনটির তথ্যপ্রযুক্তি ও পরিকল্পনা বিষয়ক উপদেষ্টা সাংবাদিক মুহা. জহিরুল ইসলাম অসীম এর সাথে কথা বললে তিনি বলেন, আমাদের এই সংগঠনটি প্রতিষ্ঠার পর থেকে দেশের বিভিন্ন জেলায় বিশেষ করে নেত্রকোনা জেলায় প্রায় এক হাজারেরও বেশি রক্ত দিয়েছে। আমি নিজে ব্যক্তিগতভাবে এই সংগঠনের মাধ্যমে থ্যালাসেমিয়ার কিছু রোগীকে প্রতিমাসে রক্ত দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছি। তারপর অন্যান্য সংগঠনগুলো থ্যালাসেমিয়া রোগীদের খুঁজে খুঁজে বের করে আজীবন রক্তদানের প্রতিশ্রুতি দিচ্ছে। ফলে থ্যালাসেমিয়া রোগীর অভিভাবকরা একদিকে যেমন রক্ত খোঁজার ঝামেলা থেকে বেঁচে যাচ্ছে, অন্যদিকে তাদের সময় অপচয় কম হচ্ছে।

‘ইকরা রক্তের বাঁধন’ এর সভাপতি ও গ্রামীণ ব্যাংকের অবসর প্রাপ্ত অফিসার মোঃ একত্তাতুল ইসলাম বলেন, নেত্রকোণা জেলার পূর্বধলা উপজেলায় আলহাজ্ব অধ্যক্ষ শফিকুজ্জামান মানুষের সেবা ব্রত নিয়ে তিনি অনেকে কাজ করছেন। গড়ে তুলেছেন বিভিন্ন সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান। লক্ষ্য একমাত্র মানবসেবা, মানবের তরে নিজেকে বিলিয়ে দেওয়া। তাই প্রতিষ্ঠা করেছেন ‘ইকরা রক্তের বাঁধন’। এই সংগঠনের কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- শিক্ষার্থী ও যুবসমাজকে স্বেচ্ছায় রক্তদানে উদ্বুদ্ধকরণ, বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয়, আহত ও মুমূর্ষুদের প্রয়োজনে স্বেচ্ছায় রক্তদানসহ সেবা সচেতনতামূলক কর্মকান্ডে সম্পৃক্ত করা। দল, মত, ধর্ম, বর্ণ- নির্বিশেষে নিরপেক্ষ সম্পূর্ণ অরাজনৈতিক অসাম্প্রদায়িক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন হিসেবে নেত্রকোণা জেলায় পরিচিতি লাভ করেছে“ ইকরা রক্তের বাধঁন”।

এছাড়াও নেত্রকোনায় রয়েছে বিপুল হাসান অপূর্ব, লুৎফুর রহমান বাবু ও মোঃ মামুন এর নেতৃত্বে রক্তদানে আমরা কেন্দুয়া। এই সংগঠনের একজন সক্রিয় কর্মী পলি জানান, আমরা সংগঠন এর মাধ্যমে ৭৬৬ ব্যাগ রক্ত ও তিন ব্যাগ প্লাজমা দিয়েছি। এছাড়াও নেত্রকোনা কাজ করে যাচ্ছে ইঞ্জিনিয়ার আতাউর রহমান হিল্লোল ও এইচ এম সুমন আহমেদের নেতৃত্বে আনন্দ রক্তদান ফাউন্ডেশন। অতি অল্প সময়ে বিপুল সাড়া ফেলেছে জেলায় সংগঠনটি। এছাড়াও নেত্রকোনার মোহনগঞ্জে স্বেচ্ছায় রক্তদানে মোহনগঞ্জ কাজ করে যাচ্ছে। কাজ করে যাচ্ছে কলমাকান্দা ব্লাড সোসাইটি, যা সুকেশ দেবনাথ এর নেতৃত্বে চলছে। প্রবাসী খায়রুল ইসলামের নেতৃত্বে নবজীবন রক্তদান সংগঠন কাজ করে যাচ্ছে। পূর্বধলায় কাজ করছে মিজানুর রহমান তাজউদ্দীন, সাদ্দাম হোসেন এবং শাহজাহানের নেতৃত্বে রক্তমিতা ফোরাম। কাজ করছে ইকরা রক্তের বাঁধন, বারহাট্টায় আছে বারহাট্টা রক্তদান ফাউন্ডেশন, দুর্গাপুরে সাংবাদিক রাজেশ গৌড়সহ কয়েকজন এর নেতৃত্বে SB (এসবি) রক্তদান ফাউন্ডেশন। স্বপ্নছায়া ব্লাড সোসাইটি কাজ করে যাচ্ছে জেলায়।

সংগঠনগুলো একযোগে একই সময়ে রক্তদাতা সৃষ্টি করছে। বিভিন্ন স্কুল-কলেজে ব্লাড ক্যাম্পিং এর মাধ্যমে বিনামূল্যে রক্ত পরীক্ষা করে তাদের রক্তদানে উদ্বুদ্ধ করছে, পাশাপাশি সকলের সামনে তুলে ধরেছে রক্ত দানের ব্যাপারে আমাদের সমাজে প্রচলিত কিছু ভুল ধারনা এবং অপব্যাখ্যার সমাধান। আমরা সুশীল সমাজের পক্ষ থেকে তাদের এই কৃতিত্বকে শ্রদ্ধা ও সাধুবাদ জানাই। তাদের প্রতি আমাদের ভালোবাসা অবিরাম থাকবে। মৃত্যুপথযাত্রী মুমূর্ষ রোগীদের যারা নিজের শরীরের রক্ত দিয়ে প্রাণ বাঁচায় তাদের ঋণ, তাদের অবদান কখনো শোধ করার নয়।

আমরা মাননীয় সরকারের কাছে আবেদন জানাচ্ছি এই স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলো যেন বিনামূল্যে রক্ত পরীক্ষা করার যেসকল সরঞ্জামাদি প্রয়োজন, জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে তালিকাভুক্তি করে সংগঠনগুলোকে তা দেওয়া, বিভিন্ন সময় অর্থনৈতিক সাপোর্ট দেওয়া এবং এই স্বেচ্ছাসেবী রক্ত যুদ্ধাদের সরকারি বিভিন্ন হাসপাতালের মাধ্যমে, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মাধ্যমে রক্তদানের প্রয়োজনীয়তা, রক্তদানের ব্যাপারে অদ্যপান্ত প্রশিক্ষণের মাধ্যমে তাদেরকে প্রশিক্ষিত করে তোলা। একটা সময় রক্তের অভাবে অনেক মানুষ প্রাণ হারাত, আজকে এই সংগঠনগুলোর কল্যাণে আমরা খুব সহজেই প্রয়োজনীয় রক্ত পেয়ে যাচ্ছি।

অত্যন্ত আনন্দের বিষয় এই যে অনেক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন কে দেখা যায়, স্বেচ্ছাসেবী রক্ত যোদ্ধাদেরকে দেখা যায় নিজেদের ফেসবুকে, তাদের মেসেঞ্জার গ্রুপ বা অন্যান্য গ্রুপে পোস্ট করে রক্ত দেয়ার ব্যাপারে নিজে থেকে আগ্রহ জানায়। তাদের এহেন মন মানসিকতাকে, তাদের এই চিন্তা চেতনাকে আমরা সেলুট জানাই। অনাগতকাল পর্যন্ত তাদের এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকুক এ প্রত্যাশাই করছি।

[জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক ও চেয়ারম্যান এআরএফবি]

ads1

আপনার মতামত লিখুন :

 ফেসবুক পেজ

 আজকের নামাজের ওয়াক্ত শুরু

    নেত্রকোণা, ময়মনসিংহ, ঢাকা, বাংলাদেশ
    মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২
    ৩০ Safar, ১৪৪৪
    ওয়াক্তসময়
    সুবহে সাদিকভোর ৪:৩৩ পূর্বাহ্ণ
    সূর্যোদয়ভোর ৫:৪৮ পূর্বাহ্ণ
    যোহরদুপুর ১১:৫০ পূর্বাহ্ণ
    আছরবিকাল ৩:১৫ অপরাহ্ণ
    মাগরিবসন্ধ্যা ৫:৫১ অপরাহ্ণ
    এশা রাত ৭:০৬ অপরাহ্ণ
নেত্রকোণার সামাজিক ঐতিহ্য —মঈনউল ইসলাম

নেত্রকোণার সামাজিক ঐতিহ্য —মঈনউল ইসলাম

নেত্রকোণা প্রতিবন্ধী সেবা ও সাহায্য কেন্দ্রের সহায়ক উপকরন বিতরণ

নেত্রকোণা প্রতিবন্ধী সেবা ও সাহায্য কেন্দ্রের সহায়ক উপকরন বিতরণ

নেত্রকোণা সমাজসেবা অধিদপ্তর কর্তৃক এপর্যন্ত ১২৩৩জন রোগীকে মোট ৬কোটি ১৬ লক্ষ ৫০ হাজার টাকার চিকিৎসা সহায়তা প্রদান

নেত্রকোণা সমাজসেবা অধিদপ্তর কর্তৃক এপর্যন্ত ১২৩৩জন রোগীকে মোট ৬কোটি ১৬ লক্ষ ৫০ হাজার টাকার চিকিৎসা সহায়তা প্রদান

পজিটিভ নেত্রকোণা-১৯, যুবরাই পারবে সংকট দূর করতে

পজিটিভ নেত্রকোণা-১৯, যুবরাই পারবে সংকট দূর করতে

নেত্রকোণা জেলা শিক্ষা প্রকৌশল ৩২৬ কোটি ৪৩ লক্ষ ৫০ হাজার টাকার অবকাঠামো নির্মাণ করছে

নেত্রকোণা জেলা শিক্ষা প্রকৌশল ৩২৬ কোটি ৪৩ লক্ষ ৫০ হাজার টাকার অবকাঠামো নির্মাণ করছে

পজেটিভ নেত্রকোণা: সংস্কৃতিক শিল্পিদের সহায়তায় নজির রেখেছেন জেলা প্রশাসক কাজি মোঃ আব্দুর রহমান

পজেটিভ নেত্রকোণা: সংস্কৃতিক শিল্পিদের সহায়তায় নজির রেখেছেন জেলা প্রশাসক কাজি মোঃ আব্দুর রহমান

সর্বশেষ সংবাদ সর্বাধিক পঠিত
 
উপদেষ্টা সম্পাদক : দিলওয়ার খান
সম্পাদক ও প্রকাশক : মুহা. জহিরুল ইসলাম অসীম  
অস্থায়ী কার্যালয় : এআরএফবি ভবন, ময়মনসিংহ রোড, সাকুয়া বাজার, নেত্রকোণা সদর, ২৪০০ ।
ফোনঃ ০১৭৩৫ ০৭ ৪৬ ০৪, বিজ্ঞাপনঃ ০১৬৪৫ ৮৮ ৪০ ৫০
ই-মেইল : netrokonajournal@gmail.com
© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত।