সব
facebook netrokonajournal.com
নেত্রকোণার উত্তর জনপদের সাহসী ভাবনা!--রীনা হায়াৎ | নেত্রকোণা জার্নাল

নেত্রকোণার উত্তর জনপদের সাহসী ভাবনা!–রীনা হায়াৎ

প্রকাশের সময়:

নেত্রকোণার উত্তর জনপদের সাহসী ভাবনা!–রীনা হায়াৎ

ads1

নেজা ডেস্কঃ
নেত্রকোণার উত্তর জনপদ বলতে সীমান্তবর্তী কলমাকান্দা, দূর্গাপুর, ধুবাউড়াকে বুঝায়। এর সাথে সমপৃক্ত বারহাট্টা এবং পুর্বধলা থানা। এই পাঁচটি থানার সমন্বয়ে উত্তর নেত্রকোনা। যা সর্বজন স্বীকৃত এবং অবগত।

আশির দশকের কথা, দেশেে তখন সামরিক শাসন চলছে, সামরিক শাসক জিয়াউর রহমানের পরে এরশাদ ক্ষমতায় অধিষ্টিত। এই সামরিক শাসনের মধ্যেই কালোচক্র নামে একটি সাময়িকী প্রকাশের মধ্য দিয়েই প্রথিতযশা সাংবাদিক সৎ সাহসীক সকলের শ্রদ্ধাভাজনেষু রাজ্জাক আহমেদ রাজু ভাইয়ের লেখালেখি শুরু হয়।

তখকার সময়েও নেত্রকোণায় প্রেসক্লাব ছিল, কিন্তু সাংবাদিকদের মধ্যে ছিল বিভেদ, বিভাজন, অনৈক্য। তিনি তখন ময়মনসিংহ শহরের স্টেশন রোডে বহুল আলোচিত তাজমহল রেঁস্তোরায় ময়মনসিংহের কবি সাহিত্যিক সাংবাদিকদের সঙ্গে আড্ডা দিতেন।

প্রতিদিনেই তাদের আড্ডা বসত, দুপুর গড়িয়ে বিকেল, রাত প্রায় বারোটা পর্যন্ত আড্ডা হতো। ময়মনসিংহ, জামালপুর, শেরপুর থেকে সতীর্থরা আড্ডায় যোগ দিত।

নেত্রকোণার তিনিই একমাত্র ছিলেন সেই আড্ডার সদস্য। আড্ডায় ছিলেন অনেকেই বিভিন্ন অঙ্গনের সমৃদ্ধ হয়ে, আর কেউ বেঁচেও নেই, যারা বেঁচে আছেন তাদের মধ্যে অন্যতম বাংলাদেশের প্রতিথযশা সাংবাদিক এক সময়ের ছড়াকার অত্যন্ত প্রতিভাবান ময়মনসিংহের গর্বিত সন্তান মনঞ্জরুল আহসান বুলবুল, মাসুদ বিভাগী, শামছুল ফয়েজ, সেলিম মাহমুদ, সালেম হাসান, আতাউল করীম খোকন, তসলিমা নাসরিন, নির্মলেন্দু গুণ অনেকেই।

সম্ভবত সৈয়দ সিদ্দিকী, মোয়াজ্জেম হোসেন আজাদ, শাহজাহান সিদ্দিকী বেঁচে নেই। তাদের কথা তিনি এখনো বার বার মনে করেন। আর বেঁচে আছেন ইয়াজদানী কোরাইশি, সেলিম আতাউর অনেকেই। যারা বেঁচে আছেন তারা সবাই প্রতিষ্ঠিত। কবিতা অঙ্গনে সমৃদ্ধ এখনো রয়েছেন।

শামছুল ফয়েজ ছিলেন লেখক, কবিতায় প্রচন্ড হাত ছিল, সেখানে তিনি আড্ডা দিতেন, আর মনে মনে ভাবতেন, নেত্রকোনার উত্তর জনপদ কলমাকান্দা, দূর্গাপুর, ধুবাউড়া বারহাট্টা পুর্বধলা কর্মরত সাংবাদিকদের নিয়ে উত্তর নেত্রকোণা প্রেসক্লাব নামে একটি সংগঠন গড়ে তুলবেন।

তিনি মনে মনে ভাবতে লাগলেন, আর সেসব থানায় কর্মরত সাংবাদিকদের নাম ঠিকানা সংগ্রহ করতে লাগলেন। সম্ভবত একাশি সালের আটই নভেম্বর তিনি আহবায়ক হয়ে উত্তর নেত্রকোণা প্রেসক্লাব এর যাত্রা শুরু করার জন্যে সভা ডাকলেন। তখন সেই ডাকে ব্যাপক সাড়া পেলেন তিনি। সভা হল।

দূর্গাপুরের- মোহন মিয়া, হাসিম উদ্দিন ফকির, শ্রী শ্রী গোবিন্দ দ্ত্ত, আব্দুর সাত্তার। ধুবাউড়ার- মাহবুব সেলিম, নিহারঞ্জন পাল মনি, অসিত দাস কেশব, শামছুল হক, গিয়াস উদ্দিন, পরিতোষ সাংমা, প্রীতিলতা বৃথী। পুর্বধলার- মিজানুর রহমান বাবু, আয়ুব আহমেদ আলো, সীদরাতুল মুনতাহা, গৌতুম কুমার রায়, জিএম হায়দার, আবু জাফর তাং। বারহাট্টার- শামছুদ্দিন আহমেদ বাবুল, ফেরদৌস আহমেদ, ডা. মোফাজ্জল হোসেন, শাহ মোঃ আব্দুল কাদের। কলমাকান্দার- ফখরুল আলম খান খসরু, মৃন্ময় বিশ্বাস ছবি, আজাদ খালেক, শাহজাহান ফরিদ, মোঃ ইব্রাহীম, শাহাদত হোসেন, হেমেন্দ্র কুমার তাং, রঞ্জিত কুমার তাং অন্যতম।

তারা সবাই কলমাকান্দা জনকল্যাণ সমিতির হলঘর সভায় যোগ দিলেন এবং উত্তর নেত্রকোণা প্রেসক্লাব নামে যাত্রা শুরু হল।

সর্বজন শ্রদ্ধেও সভাপতি করা হল রাজ্জাক আহমেদ রাজু ভাইকে, সম্পাদক ফখরুল আলম খসরুকে। তখন তাদের প্রতি বছর উত্তর নেত্রকোণা প্রেসক্লাবভুক্ত বিভিন্ন থানায় বার্ষিক অধিবেশন হত। সকল সাংবাদিকরাই যোগ দিত সেই অধিবেশনে।

কলমাকান্দার পরে দূর্গাপুরের বিরিসিরি কালচারাল একাডেমি, ধুবাউড়ার পুরাকান্দলিয়া ছায়াকানন মিলনয়াতন, পুর্বধলার শ্যামগঞ্জ ডিগ্রি কলেজ মিলনায়তন, বারহাট্টার প্রডিসি হল, পযার্য়ক্রমে তাদের বার্ষিক অধিবেশন অনুষ্ঠিত হত।

তখন সামরিক শাসন চলছিল, সামরিক শাসনের মধ্য দিয়ে তাদের যাত্রা শুরু হল। তাদের এই সকল অধিবেশনে নেত্রকোণার তৎকালীন সময়ে জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক আল আজাদ, শ্যামলন্দ পাল, হাফিজুর রহমান ওয়ারেস প্রতিটি অধিবেশনে যোগ দিতেন।

ময়মনসিংহ থেকেও বেশ কয়েকজন প্রতিথযশা সাংবাদিক তাদের অধিবেশনে আসতো। তাহাদের জন্য পৃথক জায়গা রাখা হত অতিথি সাংবাদিক হিসাবে।

তাদের অধিবেশনে ব্যাপক সাড়া পড়ল, তবে বৃহত্তর ময়মনসিংহের সব জায়গায় সমালোচনা হতে লাগলো উত্তর নেত্রকোণা শব্দটি নিয়ে। তবে অনেকের কাছে বির্তকের সৃষ্টিও হয়েছিল। তবু দেখা গিয়েছিল বছর দু-একের মধ্যেই উত্তর নেত্রকোণা রাজনীতিকভাবে সামাজিকভাবে সাংস্কৃতিকভাবে সাংবাদিকতার ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠিত হয়ে গিয়েছিল।

সবার মুখে উত্তর নেত্রকোণা, লেখার মধ্যে উত্তর নেত্রকোণা শব্দটি প্রকাশ হতে লাগল এই যাত্রার মধ্য দিয়েই, তাদের প্রেসবক্লাব এ যাত্রা অত্যান্ত সুন্দর সুশ্রীঙ্খল ভাবে চলতে লাগলো।

হঠাৎ করেই বারহাট্টার শামছুল হক বাবুল, দূর্গাপুরের মোহন মিয়া, ধুবাউড়ার মাহবুব আলম, অসিত দাস কেশবের নামে মিথ্যা মামলা দায়ের করা হল।

উত্তর নেত্রকোণা প্রেসক্লাব এই সামরিক শাসনের মাঝে শান্তি পূর্ণভাবে তীব্র প্রতিবাদ জানালো এবং সেই প্রতিবাদের মুখে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করতে বাধ্য হল। তারা জয়ী হলেন। কিন্তু উত্তর নেত্রকোণা প্রেসক্লাব সভাপতির মনে একটি স্বপ্ন ছিল, এই উত্তর নেত্রকোণা প্রেসক্লাব তখনি বিলুপ্ত হবে, যেদিন উত্তর নেত্রকোণা প্রেসক্লাবভূক্ত প্রতিটি থানায় স্থানীয় প্রেসক্লাব প্রতিষ্ঠিত হবে।

আজকে আমরা যারা এ পেশায় আছি, আমরা গর্ববোধ করে বলতে পারি উত্তর নেত্রকোণা প্রেসক্লাবভুক্তের বিলুপ্তি ঘটেছে। আজকে প্রচুর সাংবাদিকের সৃষ্টি হয়েছে, কিন্তু তাদের যে পারস্পরিক বন্ধন, সমযোতা, সহমর্মিতা, সহানুভূতি ও আন্তরিকতা ছিল, এখন আর নেই।

তাদের আরেকটি স্বপ্ন ছিল, উত্তর নেত্রকোণা থেকে নিয়মিত একটি সংবাদ পত্র বা একটি সাময়িকী প্রকাশ করার। যদিও সভাপতি সাহেব আশির দশকে কালোচক্র নামে একটি সাময়িকী প্রকাশ করেছিলেন, সেই সাময়িকীর আলোচনার ঝড় বয়েছিল, লেখার ওপর সম্পাদকের ওপর মামলাও হয়েছিল, সেই মামলাও তিনি জয়ী হয়েছিলেন।

তার স্বপ্নের হাত ধরে আমরা যখন এই সময়ে এসে শুনি সেই এতদিন পরে হলেও দূর্গাপুর থেকে সুসংবার্তা নামে একটি পত্রিকা আত্মপ্রকাশ করেছে এবং নিয়মিত তা সপ্তাহে সপ্তাহে বের হচ্ছে, তা শুনে খুব গর্ববোধ করি, এবং আশাবাদী হই, সুসংবার্তা প্রকাশের মধ্য দিয়ে উত্তর নেত্রকোণার যে কাংঙ্খিত স্বপ্ন ছিল তা সম্ভবত বাস্তবে এগুচ্ছে।

সুসং বার্তার সম্পাদকের সঙ্গে আমার তেমন পরিচয় নেই। কিন্তু সম্পর্ক যোগাযোগ না থাকলেও সম্পাদকের প্রতি মনে মনে তার এই শুভ আত্মপ্রকাশকে স্বাগত ও ধন্যবাদ জানাই।

আরো সাধুবাদ ও অভিনন্দন জানাই এই উত্তর নেত্রকোণা থেকে সুসং বার্তার ন্যায় যদি কোন সহৃদয়বান ব্যক্তি কোন পত্রিকা বা সাময়িকী প্রকাশ করে থাকেন। (সংকলিত)

ads1

আপনার মতামত লিখুন :

 ফেসবুক পেজ

 আজকের নামাজের ওয়াক্ত শুরু

    নেত্রকোণা, ময়মনসিংহ, ঢাকা, বাংলাদেশ
    মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২
    ১ Rabi' I, ১৪৪৪
    ওয়াক্তসময়
    সুবহে সাদিকভোর ৪:৩৩ পূর্বাহ্ণ
    সূর্যোদয়ভোর ৫:৪৯ পূর্বাহ্ণ
    যোহরদুপুর ১১:৪৯ পূর্বাহ্ণ
    আছরবিকাল ৩:১৪ অপরাহ্ণ
    মাগরিবসন্ধ্যা ৫:৫০ অপরাহ্ণ
    এশা রাত ৭:০৫ অপরাহ্ণ
কবি মোঃ শহিদ আলম এর ৩টি কবিতা

কবি মোঃ শহিদ আলম এর ৩টি কবিতা

বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা’র নেতৃত্বে অনন্য উচ্চতায় বাংলাদেশ: এজেডএম সাজ্জাদ হোসেন

বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা’র নেতৃত্বে অনন্য উচ্চতায় বাংলাদেশ: এজেডএম সাজ্জাদ হোসেন

বিরহী কবি মাজেদুল হক

বিরহী কবি মাজেদুল হক

নেত্রকোণার উত্তর জনপদের সাহসী ভাবনা!–রীনা হায়াৎ

নেত্রকোণার উত্তর জনপদের সাহসী ভাবনা!–রীনা হায়াৎ

কবিতা : পুরনো দিনের কথা, কবি মোঃ এনামুল হক

কবিতা : পুরনো দিনের কথা, কবি মোঃ এনামুল হক

কবি গোলাম জাকারিয়া এর দুটো কবিতা

কবি গোলাম জাকারিয়া এর দুটো কবিতা

সর্বশেষ সংবাদ সর্বাধিক পঠিত
 
উপদেষ্টা সম্পাদক : দিলওয়ার খান
সম্পাদক ও প্রকাশক : মুহা. জহিরুল ইসলাম অসীম  
অস্থায়ী কার্যালয় : এআরএফবি ভবন, ময়মনসিংহ রোড, সাকুয়া বাজার, নেত্রকোণা সদর, ২৪০০ ।
ফোনঃ ০১৭৩৫ ০৭ ৪৬ ০৪, বিজ্ঞাপনঃ ০১৬৪৫ ৮৮ ৪০ ৫০
ই-মেইল : netrokonajournal@gmail.com
© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত।