সব
facebook netrokonajournal.com
মোহনগঞ্জের প্রাইমারিতে শিক্ষক ডেপুটেশন: শিক্ষার্থীদের লেখাপড়া ব্যাহত | নেত্রকোণা জার্নাল

মোহনগঞ্জের প্রাইমারিতে শিক্ষক ডেপুটেশন: শিক্ষার্থীদের লেখাপড়া ব্যাহত

প্রকাশের সময়:

মোহনগঞ্জের প্রাইমারিতে শিক্ষক ডেপুটেশন: শিক্ষার্থীদের লেখাপড়া ব্যাহত

মোহনগঞ্জ সংবাদদাতা:
নেত্রকোণা জেলার মোহনগঞ্জ উপজেলায় প্রাথমিক শিক্ষক শিক্ষিকারা তাদের পছন্দমত স্কুলে ডেপুটেশনে অত্র উপজেলার মধ্যে ও অন্য উপজেলায় দীর্ঘদিন যাবৎ চাকরি করায় মূল বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের লেখাপড়া ব্যাহত হবার খবর পাওয়া গেছে ‌‌‌।

উপজেলা শিক্ষা অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) বলেন, সাবেক কর্মকর্তার আমলে ডেপুটেশনে বদলি করায় মূল বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের লেখাপড়া ব্যাহত হচ্ছে ।

জানা গেছে, অত্র ১২ অক্টোবর গতকাল বুধবার পর্যন্ত মোহনগঞ্জে ৭/৮ জন মূল বিদ্যালয় হতে সংযুক্ত বিদ্যালয়ে শিক্ষক-শিক্ষিকা হিসেবে চাকরি করার চাঞ্চল্য খবর পাওয়া গেছে । গ্রামের স্কুল থেকে শহরের স্কুলে ৯/১০ বছর যাবত ডেপুটেশনে চাকরি করছেন ।

অত্র উপজেলা থেকে নেত্রকোনা সদরে ২ জন শিক্ষিকা ডেপুটেশনে চাকরি করছেন। খালিয়াজুরী উপজেলা থেকে মোহনগঞ্জ উপজেলার মাইলোড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ১ জন শিক্ষক চাকুরী করছেন । গ্রাম থেকে ডেপুটেশনে পৌর শহরে ও সুবিধাজনক স্কুলে বেশ কয়েকজন শিক্ষক শিক্ষিকা কিছুদিন চাকরি করে আবার পূর্বের কর্মস্থলে ফিরে গিয়েছেন এমনও প্রমাণ পাওয়া গেছে।

এব্যাপারে দৌলতপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এর প্রধান শিক্ষক মাহবুবুর রহমান জানান, মাহমুদা আক্তার খাতুন ৯/১০ বছর যাবত আমার স্কুলে ডেপুটেশনে এসেছেন। আমার স্কুলের সহকারি শিক্ষিকা শেলিনা সুলতানা নেত্রকোনা সদরে ডেপুটেশনে গিয়েছেন । তিনি বলেন ইহা উচ্চ পর্যায়ের বিষয় আমার বলার কিছুই নেই ।

অপরদিকে মানশ্রী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মুঃ রানা আসিফ বলেন, আমার স্কুলের একজন সহকারী শিক্ষিকা তিনি দৌলতপুর মডেলে ডেপুটেশনে গিয়েছেন কত বছর যাবত তা আমার জানা নেই। বর্তমানে আমার স্কুলে ওই শিক্ষিকার কোন অস্তিত্ব নেই। বিষয়টি তদন্ত করলে আরো কিছু বেরিয়ে আসতে পারে। রুম্পা রানী সাহা পাবই হাজী মোতালিব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে নেত্রকোনা সদরে ডেপুটেশনে গিয়েছেন।

উক্ত প্রধান শিক্ষকা পান্না রাণী রায় বলেন, আমার স্কুলের শিক্ষার্থীদের পাঠদানে ব্যাহত হচ্ছে কিন্তু উচ্চ পর্যায়ের বিষয় বলে আমার বলার কিছুই নেই। আমি অসহায়। সহকারী শিক্ষিকা মরিয়ম আক্তার করাচাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় হতে বার্তাকোনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় চাকুরি করছেন । সহকারী শিক্ষিকা রিনা আক্তার পাইকুড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় হতে কাজিহাটী পালেহা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ডেপুটেশনে চাকুরি করছেন ।

প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলাম বলেন, ইহা উচ্চ পর্যায়ের বিষয়। আমি নিরুপায়। সহকারী শিক্ষক ফরিদ আহমেদ পালগাও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় হতে ছয়াশি স্কুলে ডেপুটেশনে আছেন । সহকারী শিক্ষিকা দীপা আক্তার জৈনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় হতে মানারকান্দী স্কুলে ডেপুটেশনে আছেন । মানারকান্দি স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা সৈয়দা মুন্নি বেগম বলেন, আমার কাছে ডেপুটেশনের কাগজপত্র আছে। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার ( ভারপ্রাপ্ত ) বিশ্বজিত সাহা বলেন, আমরা এরকম অনেকেই নিজ কর্মস্থল থেকে সুবিধা জনক কর্মস্থলে ডেপুটেশনে চাকুরী করছেন আমার অফিসে তথ্য রয়েছে । আবার কেউ ফেরত গিয়েছেন এরকম তথ্য আমাদের অফিসে আছে । আমরা উচ্চ পর্যায়ের নির্দেশে ডেপুটেশনের তালিকা প্রণয়ন প্রক্রিয়াধীন। ৬ নং সুয়াইর ইউনিয়নের পাবই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা সীমা চৌধুরী ডেপুটেশনে কাজীহাটী পালেহা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় চাকুরী করেছেন । কিছুদিন পর সীমা চৌধুরী আবার পালগাও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ফেরত যেতে হয়েছে ।

পালগাও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা ( ভারপ্রাপ্ত) রিনা আক্তার খাতুন জানান, বড় স্যাররা বললে আমাদের করার কিছু নেই। আমাদের স্কুলের লেখাপড়া ব্যাহত হবে এই কথা বলার সুযোগ নেই। তবে ম্যানেজিং কমিটি এক সভায় ছাত্রছাত্রীদের লেখাপড়া ব্যাহত হচ্ছে উল্লেখ করে জেলা ও উপজেলায় রেজুলেশনের কপি পাঠানো হয় । একমাত্র এই ডেপুটেশনের শিক্ষিকা সীমা চৌধুরী অল্প সময়ের মধ্যে পূর্বের কর্মস্থলে ফেরত যেতে হয়েছে । তাছাড়া পশুখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারী শিক্ষক সুব্রত চক্রবর্তী ৭/৮ বছর, কি তার ও অধিক সময় বিদ্যালয়ে না গিয়ে অলিখিতভাবে উপজেলা শিক্ষা অফিসে দায়িত্ব পালন করেছেন। উপজেলা পরিষদের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও সাংবাদিকরা মনে করত অফিসের স্টাফ । তিনি একদিন নয়, এক সপ্তাহ, এক মাস, এক বছর নয় – বছরের পর বছর বিদ্যালয়ে গড়হাজির থেকে ঐ স্কুলের প্রধান শিক্ষক হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর নিয়ে বেতন উত্তোলন করার ব্যবস্থা করে দিয়েছেন । পশুখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ শহিদুল ইসলাম বলেছেন, আমি অসহায়।

উপজেলা শিক্ষা অফিসার ডেকে নিলে আমার আর কোন কিছু করার থাকে না। বিষয়টি চলতি বছরের মার্চ মাসে একাধিকবার জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ ওবায়দুল্লাহ সাহেব কে অবহিত করলে তিনি ব্যবস্থা নিবেন আশ্বাস দেন। বিষয়টি নিয়ে বারবার খোঁজ খবর রাখলে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোহনগঞ্জ উপজেলা শিক্ষা অফিসারের প্রতি চরম অসন্তোষ প্রকাশ করলে সুব্রত চক্রবর্তী শিক্ষা অফিস ত্যাগ করতে বাধ্য হন। এব্যাপারে নবাগত জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার তাহমিনা খাতুন এর সাথে মোবাইলে কথা হলে তিনি বলেন আমি বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করব। মূল কর্মস্থলে শিক্ষক-শিক্ষিকা গড় হাজির ও পাঠদান না করে বেতন উত্তোলন করছেন। জনগণের প্রশ্ন সঠিক হাজিরা কোন বিদ্যালয় হবে? মূল বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের লেখাপড়া ব্যাঘাত হচ্ছে, এই অজুহাতে সকল ডেপুটেশন বাতিল করে পূর্বের কর্মস্থলে শিক্ষক শিক্ষিকাদেরকে ফিরিয়ে আনা প্রয়োজন। পাশাপাশি কার বেআইনি নির্দেশে কাজটি হয়েছে তা তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া প্রয়োজন ।

আপনার মতামত লিখুন :

 ফেসবুক পেজ

 আজকের নামাজের ওয়াক্ত শুরু

    নেত্রকোণা, ময়মনসিংহ, ঢাকা, বাংলাদেশ
    শুক্রবার, ২ ডিসেম্বর, ২০২২
    ৮ Jumada I, ১৪৪৪
    ওয়াক্তসময়
    সুবহে সাদিকভোর ৫:০৪ পূর্বাহ্ণ
    সূর্যোদয়ভোর ৬:২৪ পূর্বাহ্ণ
    যোহরদুপুর ১১:৪৮ পূর্বাহ্ণ
    আছরবিকাল ২:৫০ অপরাহ্ণ
    মাগরিবসন্ধ্যা ৫:১১ অপরাহ্ণ
    এশা রাত ৬:৩১ অপরাহ্ণ
এসএসসিতে জিপিএ গোল্ডেন ৫ পেয়েছে মায়েদা রহমান মিথি

এসএসসিতে জিপিএ গোল্ডেন ৫ পেয়েছে মায়েদা রহমান মিথি

আটপাড়া ডিগ্রী কলেজের ছাত্রী নিবাসের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন

আটপাড়া ডিগ্রী কলেজের ছাত্রী নিবাসের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন

নেত্রকোণা জার্নালে সংবাদ প্রকাশের ফলে মোহনগঞ্জে প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষক ডেপুটেশনের আদেশ বাতিল

নেত্রকোণা জার্নালে সংবাদ প্রকাশের ফলে মোহনগঞ্জে প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষক ডেপুটেশনের আদেশ বাতিল

মোহনগঞ্জের প্রাইমারিতে শিক্ষক ডেপুটেশন: শিক্ষার্থীদের লেখাপড়া ব্যাহত

মোহনগঞ্জের প্রাইমারিতে শিক্ষক ডেপুটেশন: শিক্ষার্থীদের লেখাপড়া ব্যাহত

আটপাড়ায় সেকেন্ড চান্স এডুকেশন প্রোগ্রামের সমন্বয় সভা

আটপাড়ায় সেকেন্ড চান্স এডুকেশন প্রোগ্রামের সমন্বয় সভা

কলমাকান্দা মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কমিটি গঠন

কলমাকান্দা মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কমিটি গঠন

সর্বশেষ সংবাদ সর্বাধিক পঠিত
 
উপদেষ্টা সম্পাদক : দিলওয়ার খান
সম্পাদক ও প্রকাশক : মুহা. জহিরুল ইসলাম অসীম  
অস্থায়ী কার্যালয় : এআরএফবি ভবন, ময়মনসিংহ রোড, সাকুয়া বাজার, নেত্রকোণা সদর, ২৪০০ ।
ফোনঃ ০১৭৩৫ ০৭ ৪৬ ০৪, বিজ্ঞাপনঃ ০১৬৪৫ ৮৮ ৪০ ৫০
ই-মেইল : netrokonajournal@gmail.com
© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত।