সব
facebook netrokonajournal.com
রূপকথার গল্প: 'মৌরানী'।। লেখিকা: পঞ্চভূত  | নেত্রকোণা জার্নাল

রূপকথার গল্প: ‘মৌরানী’।। লেখিকা: পঞ্চভূত 

প্রকাশের সময়:

রূপকথার গল্প: ‘মৌরানী’।। লেখিকা: পঞ্চভূত 

ads1

রূপকথার গল্প
মৌরানী
পঞ্চভূত

অনেক দিন আগের কথা। প্রকৃতির জাজিমে মোড়ানো ছিল একটি অরণ্য রাজ্য । সেই অরণ্য রাজ্যের উপকন্ঠে ছিল বিশাল এক বটবৃক্ষ, তার মগডালে বাসা বেধেঁছিল একটি মৌচাক।

আর অন্য ডালে ছিল একটি বিষাক্ত ভিমরুলের বাসা। সেই মৌচাকের রাজত্বে মৌরানী ছিল সর্বেসর্বা। তার রাজ্যে তার আদেশই ছিল শেষ কথা। হাজার হাজার মৌমাছি মৌরানীকে ঘিরেই বিরাজ করতো সারাবেলা। তা দেখে প্রতিবেশী ভিমরুলের রাজা হিংসায় ফেটে পড়ে।

সকল মৌমাছিরা কেন এই মৌরানীর কমান্ড মেনে চলে, তা সহ্য করতে পারে না সে। সেই ক্ষোভ থেকে তার দলবল নিয়ে সন্ধি হলো, কিভাবে এই নন্দীত মৌরানীকে মৌমাছির রাজত্ব থেকে বিচ্ছিন্ন করা যায়, সেই ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হলো।

এদিকে মৌরানী তার মৌ বাহিনীকে নিয়ে নিশ্চিন্তে নির্ভাবনায় রানীর আসনে বসে রাজ্য চালায়। ওদিকে দুষ্ট ভীমরুলের রাজা তার বাহিনীকে নিয়ে দিনকে দিন মৌ বাহিনীকে ধ্বংস করার উপায়ে উৎ পেতে থাকে।

যখন মৌমাছিরা মধু সংগ্রহে বেরিয়ে পড়ে, দিকবেদিক ছুটাছুটি করে,বিভিন্ন ফুলের ওপর গিয়ে বসে মধু সংগ্রহ করে, অমনি তাদের বিষাক্ত মুখের কামান ফুটিয়ে মৌমাছিদের একে একে মারে।

এমনি করে দিনকে দিন ঐ বিষাক্ত কামান বাহিনী এভাবেই মৌ বাহিনীকে শেষ করে দেয়। শূন্য আসনে যখন মৌরানী নিশ্চুপ বসে থাকে একা, সর্বহারা হয়ে! তখন ঐ দুষ্ট বাহিনীরা তার চারপাশে ভনভনিয়ে উড়ে বিষাক্ত কামানের দাঁত বের করে দিয়ে খেলখেলিয়ে হাসে।

অসহায় মৌরানী নিরুপায় হয়ে নিশ্চুপ তাকিয়ে থাকে আর নিরবে কত বিভৎস বিদ্রুব ভৎসনা শুনে যায়।এভাবে দিনের শেষে রাত আসে সেও চলে যায়।হঠাৎ আহত এক ডানা ভাঙ্গা মৌমাছি তার রানী মাকে খুঁজে বেড়ায়। ডানা ঝাঁপটাতে ঝাঁপটাতে রানীর আসনে যখন ফিরে আসে।

তখন শূন্য আসনে তাকিয়ে দেখে রানীমা ছাড়া আর কেউ নেই। প্রজাহীন রাজ্যে যেনো রানীমা একা নিঃস্ব হয়ে বসে আছে। হঠাৎ আহত মৌমাছিকে দেখে রানীমা প্রাণ ফিরে পায়। হাউ মাউ করে কেঁদে ওঠে বলে, তোরা একে একে আমাকে ছেড়ে কোথায় চলে গিয়েছিলে? আহত মৌমাছি তখন কামানের বিবরণ জানায়।

ঘটনার বিবরণ শুনে রানী বুঝতে পারে তার বাহিনীর নিখোঁজ হওয়ার কারণ এই বটে। সঙ্গে সঙ্গে তার রানীমা আহত মৌমাছিকে নিয়ে এ রাজ্য ছেড়ে অন্যত্রে চলে যায়। সেখানে দিন যেতে থাকে আর প্রতিশোধের আগুন দাউ দাউ করে জ্বলতে থাকে।

ধীরে ধীরে আহত মৌমাছি তার রানীমার শোককে শক্তিতে পরিণত করে, সাহসে উঠে দাঁড়ায়, রানীমাকে নিয়ে সামনে এগিয়ে যায়। এভাবে যেতে যেতে অরণ্যের পর অরণ্য পেরিয়ে আবার নতুন করে তার বাহিনী নিয়ে রানীমা তার রাজ্যে প্রবেশ করে। সেই ষড়যন্ত্রকারী কামান বাহিনীর বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে যুদ্ধ ঘোষণা করে পরাস্ত করে, অবশেষে বিতাড়িত করে তার রাজ্য থেকে বিষাক্ত ভীমরুল বাহিনীকে।

এমনই করে রানী তার হারানো রাজ্য ফিরে পায়। আবার রাজ আসনে রানী আসীন হয়। আর আহত সেই মৌমাছি জীবনের বিনিময়ে বুঝিয়ে দিয়ে যায়, এই রানীমা ছাড়া তোমাদের রাজ্য মূল্যহীন।

ads1

আপনার মতামত লিখুন :

 ফেসবুক পেজ

 আজকের নামাজের ওয়াক্ত শুরু

    নেত্রকোণা, ময়মনসিংহ, ঢাকা, বাংলাদেশ
    সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২
    ৩০ Safar, ১৪৪৪
    ওয়াক্তসময়
    সুবহে সাদিকভোর ৪:৩৩ পূর্বাহ্ণ
    সূর্যোদয়ভোর ৫:৪৮ পূর্বাহ্ণ
    যোহরদুপুর ১১:৫০ পূর্বাহ্ণ
    আছরবিকাল ৩:১৫ অপরাহ্ণ
    মাগরিবসন্ধ্যা ৫:৫১ অপরাহ্ণ
    এশা রাত ৭:০৬ অপরাহ্ণ
কবি মোঃ শহিদ আলম এর ৩টি কবিতা

কবি মোঃ শহিদ আলম এর ৩টি কবিতা

বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা’র নেতৃত্বে অনন্য উচ্চতায় বাংলাদেশ: এজেডএম সাজ্জাদ হোসেন

বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা’র নেতৃত্বে অনন্য উচ্চতায় বাংলাদেশ: এজেডএম সাজ্জাদ হোসেন

বিরহী কবি মাজেদুল হক

বিরহী কবি মাজেদুল হক

নেত্রকোণার উত্তর জনপদের সাহসী ভাবনা!–রীনা হায়াৎ

নেত্রকোণার উত্তর জনপদের সাহসী ভাবনা!–রীনা হায়াৎ

কবিতা : পুরনো দিনের কথা, কবি মোঃ এনামুল হক

কবিতা : পুরনো দিনের কথা, কবি মোঃ এনামুল হক

কবি গোলাম জাকারিয়া এর দুটো কবিতা

কবি গোলাম জাকারিয়া এর দুটো কবিতা

সর্বশেষ সংবাদ সর্বাধিক পঠিত
 
উপদেষ্টা সম্পাদক : দিলওয়ার খান
সম্পাদক ও প্রকাশক : মুহা. জহিরুল ইসলাম অসীম  
অস্থায়ী কার্যালয় : এআরএফবি ভবন, ময়মনসিংহ রোড, সাকুয়া বাজার, নেত্রকোণা সদর, ২৪০০ ।
ফোনঃ ০১৭৩৫ ০৭ ৪৬ ০৪, বিজ্ঞাপনঃ ০১৬৪৫ ৮৮ ৪০ ৫০
ই-মেইল : netrokonajournal@gmail.com
© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত।